১৪ই জুন, ২০২১ ইং রাত ২:৩৪

মনপুরায় জাতীয় গ্রিডে বিদ‍্যুৎ চাই স্লোগানে চরফ‍্যাশনস্থ মনপুরা বাসীর মানববন্ধন

Reporter Name
  • Update Time : Saturday, June 5, 2021,
  • 76 Time View

বনি আমিন -(বিশেষ প্রতিনিধি)!!!

ভোলা মনপুরায় মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভোলার বিচ্ছিন্ন চরাঞ্চলগুলোতে সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হলেও মডেল উপজেলা হিসেবে খ্যাত ‘মনপুরা উপজেলায়’ বিদ্যুৎ সংযোগ স্থাপন করা হয়নি। এতে মনপুরাবাসী বিদ্যুৎ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা বাসায় বসে অনলাইন ক্লাস এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার শিক্ষা গ্রহণ করতে পারছে না। এভাবে চলতে থাকলে মনপুরার আগামী প্রজন্ম ডিজিটাল যুগ থেকে পিছিয়ে পড়বে বলে মনে করছেন সুশীল সমাজ।

আজ (৫ জুন শনিবার) বেলা ১০টায় চরফ‍্যাশন প্রেসক্লাবের সামনে ‘জাতীয় গ্রীডের বিদ্যুৎ চাই স্লোগানে চরফ‍্যাশনস্থ মনপুরা বাসীর আয়োজনে এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন বক্তারা। মানববন্ধন বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক ও চরফ‍্যাশন সোনালী ব‍্যাংক শাখার ম‍্যানেজার মোঃ কামরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অপ্টমেন্ট্রিষ্ট,দ্বীপ চক্ষু হাসপাতাল মোঃ জোবায়ের হোসেন বলেন, মনপুরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের দ্বীপ। তিনি বেঁচে থাকলে এখানে দ্বিতীয় আবাস করতেন।ভোলা ৪ চরফ‍্যাশন ও মনপুরার সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব মনপুরায় সব সেবামূলক প্রতিষ্ঠান স্থাপন করেছেন। শুধুমাত্র বিদ্যুতের অভাবে সাধারণ শিক্ষার্থী ডিজিটাল যুগ থেকে পিছিয়ে পড়ছে। তাই মনপুরাবাসীকে বিদ্যুতের আওতায় আনতে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি। তিনি আরো বলেন অনেক বিচ্ছিন্ন চরাঞ্চল ডিজিটাল যুগে পর্দাপণ করেছে। কিন্তু মনপুরায় সংযোগ দেয়া হয়নি। সাবেক বিদ্যুৎ সচিব মনপুরা পরিদর্শনে এসে শতভাগ বিদ্যুৎ দেয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন। কিন্তু মনপুরাবাসী বাস্তবে জাতীয় গ্রীডের সেই বিদ্যুতের খুঁটি আজো দেখতে পায়নি। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ২ নং হাজির হাট ইউনিয়নের সাবেক সচিব মোঃ আলম বলেন, মনপুরার সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিদ্যুতের অভাবে ক্লাসরুমে কম্পিউটার শিক্ষা গ্রহণ করতে পারছে না। ৩টি ইউনিয়নে মিনি সোলার গ্রীডের বিদ্যুৎ থাকলেও তা বেশির ভাগ মানুষ পাচ্ছে না। সোলার গ্রীডের ইউনিট চার্জ ৩০ টাকা। যা পৃথিবীর কোথায়ও নেই। তাছাড়া মনপুরার মানুষ নিতান্তই দিনমজুর। মাস শেষে তাদের পক্ষে ৩০ টাকা ইউনিটে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা সম্ভব নয়। তাই বর্তমান সোলার গ্রীডের বিদ্যুৎ রেট ৭ টাকা ইউনিট করার পাশাপাশি জাতীয় গ্রীডের বিদ্যুৎ সংযোগ স্থাপনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানান তিনি। মানববন্ধনে ‘মনপুরায় জাতীয় গ্রীডের বিদ্যুৎ চাই, ন্যায্যমূল্যে বিদ্যুৎ চাই’ সোলার গ্রীডের রক্তচোষা দাম বন্ধ হোক, শেখ হাসিনার বিদ্যুৎ চাই’ সম্বলিত ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে শ্লোগান তোলেন উপস্থিত জনতা। তারা বলেন, বঙ্গোপসাগর ঘেঁষা মনপুরার ইলিশ সহ অনেক পণ্য থেকে সরকার হাজার হাজার কোটি টাকার রাজস্ব আয় করে থাকেন। অথচ এই দ্বীপের মানুষ সামান্য বিদ্যুৎ সেবা থেকে বঞ্চিত। সরকারি ব্যবস্থাপনায় উপজেলা সদরে বিদ্যুৎ থাকলেও তা অল্প সংখ্যক বাসিন্দা পাচ্ছেন। তাও রাতে মাত্র ৬ ঘণ্টা বিদ্যুৎ দেয়া হয়। এছাড়া ৩টি ইউনিয়নে থাকা সোলার গ্রীড কোম্পানি গ্রাহকের কাছ থেকে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম নিচ্ছে ৩০ টাকা। যা এখানকার মানুষের জন্য খুবই কষ্টসাধ্য। মনপুরায় বিদ্যুতের অভাবে জনজীবন যেন থমকে আছে। মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ ফখরুল ইসলাম, মোঃ সোহরাব হোসেন, মোঃ কায়েস চৌধুরী, মোঃজসিম উদ্দিন, মোঃ নুর আলম শামিম, মোঃ জসিম, মোঃ নিজাম উদ্দিন,মোঃ শাহিন, প্রভাষক মোঃ ছালাউদ্দিন, মোঃ তারেক, বিকাশ চন্দ্র মজুমদার,ও সাংবাদিক এইচ এম নোমান সহ প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
AshrafTech