২৫শে মে, ২০২২ ইং সকাল ৭:২১
ব্রেকিং নিউজ
মোহনা টিভির যুগ্ম বার্তা সম্পাদক ইমরানের পিতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ খেলাধূলা এক ধরনের শরীর চর্চা-ভোলায় এমপি শাওন  দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিনে জেলেদের মাঝে বকনা বাছুর বিতরণ করেছেন এমপি মুকুল মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ-ভোলায় এমপি শাওন ভোলায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেণ, তোফায়েল আহমেদ ভোলায় দ্বীপ উন্নয়ন সোসাইটির উদ্যোগে আউট অব স্কুল চিল্ডেন প্রকল্পের শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দৌলতখানে গনি বাহিনীর বর্বরোচিত হামলায় ২টি পরিবারের মানবেতর জীবন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়িতি হচ্ছে- তোফায়েল আহমেদ ভোলায় শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন  তোফায়েল আহমেদ বাংলাদেশ ননফরমাল এডুকেশন ফোরাম এর নতুন কমিটি গঠন

ভোলার দৌলতখানে ভান্ডারী হত্যাকান্ড নিয়ে বাণিজ্য মিশনে নেমেছে একটি চক্র

Reporter Name
  • Update Time : Saturday, April 9, 2022,
  • 350 Time View

ক্রাইম বিডি ডেক্স।
ভোলার দৌলতখান উপজেলার উত্তর জয়নগর ৪নং ওয়ার্ডে (বাংলাবাজার সংলগ্ন) গত ২৯মার্চ রাতে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত মোহাম্মদ আলী ভান্ডারী ৬দিন পর ঢাকায় মারা গেছে। হামলার পর তাকে প্রথমে ভোলা সদর হাসপতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পঠিয়ে দেন। কিন্তু জানাগেছে ভান্ডারীর লোকেরা তাকে ডাক্তারের কথা মতো ঢাকার কোন হাসপাতালে ভর্তি না করিয়ে তার জামাইর বাসায় রেখে দেয়। পরে সে ঘটনার ৬দিন পরে সেখানেই মারা যায়।
এ ঘটনায় দৌলতখান থানায় ১২জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন নিহতের ২য় স্ত্রী কোহেনুর বেগম। এখন পর্যন্ত ২জন আসামীকে আটক করেছে পুলিশ। তবে অবাক কান্ড হলো, মামলার বাদী কোহিনুর বেগম জানে না আসামী কারা, কতজন এবং কে কি অপরাধ করেছে তারা। কোহিনুর বেগম সাংবাদিকদের ক্যামারার সামনে জানান, ওই এলাকার কয়েকজন লোক তাকে থানায় নিয়ে গিয়ে একটি কাগজে টিপসই দিতে বললে সে তাদের কথামাতো টিপসই দেয়। তা ছাড়া এ ১২জন আসামীরা হত্যাকান্ডে জড়িত কিনা সে কিছুই জানে না।
স্থানীয়রা জানায়, ওই এলাকার একটি কু-চক্রী মহল নিজেদের স্বার্থ
হাসিলের জন্য অবোলা এ বাদিনীকে লাঠি হিসেবে ব্যবহার করছে। তাকে বিভিন্ন লোভ দেখিয়ে ওই এলাকার কয়েকজন নির্দোষ লোকের নাম ঢুকিয়ে দিয়েছে এ মামলার আসমীদের তালিকায়। স্থানীয় সূত্রে আরো জানাগেছে, ওই এলাকার আমির হোসেন, আবদুল মালেক, ছগির আলী, ওমর ফারুক, সেফালী বেগম, সোনিয়া আক্তার, আয়শা বেগমসহ অনেকেই জানান, মামলায় উল্লেখিত ১২জন আসামীর মধ্যে হয়তো ৩/৪ জন আসামী মোহাম্মদ আলীর হত্যাকান্ডে জড়িত। অন্য অসামীরা এ হত্যাকান্ডের ধারে কাছও ছিলো না। এই এলাকার একটি ধন্দাবাজ চক্র অবোলা নারী কোহিনুরকে ফুসলিয়ে ও উল্টাপাল্টা বুঝিয়ে এলাকার বিভিন্ন নির্দোষ লোককে এ মামলায় জড়িয়েছে। এরা শাপ হয়ে ধ্বংসন করে আবার ওঝা হয়ে ঝাড়ে। এ কু-চক্রী মহলের সদস্যরা কোহিনুরকে লাঠি হিসেবে ব্যবহার করে তাদের পূর্ব শত্রুতা উদ্ধার করছে। অন্যদিকে একটা সময় এ মামলা থেকে নাম কাটানোর জন্য এ কু-চক্রী মহলের সদস্যরা মোটা অংকের টাকা দাবী করবে নির্দোষ আসামীদের কাছ থেকে।
উল্লেখ্য এ মামলায় নির্দোষ কয়েকজন আসামী বর্তমানে পুলিশের ভয়ে এলাকা ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে বেড়াচ্ছে। যার মধ্যে রয়েছে কয়েকজন দিন এনে দিন খাওয়া, দিন মজুর ব্যক্তি। যার করণে তাদের পরিবারের সদস্যরা বর্তমানে অভাব অনটনে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে।
তাই মোহাম্মদ আলী মামলার নির্দোষ আসামীরা তদন্ত সাপেক্ষে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেণ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
AshrafTech